July 3, 2020

করোনাভয় এড়িয়ে পাবনায় হাজারো শালিকের খাবার যোগাচ্ছেন সমর ঘোষ

বিশেষ প্রতিনিধি
ঘড়ির কাঁটায় ভোর সাড়ে পাঁচটা। করোনাকালের এই আতঙ্কের ভোরে জনশূন্য পাবনার ব্যস্ততম ট্রাফিক মোড়। রেস্তোরাগুলোতে জ¦লছেনা চুলো, নেই হকারের চিরচেনা হাঁকডাকও। গত কয়েকদিনের এমন অচেনা দৃশ্যে যেন স্তম্ভিত, বিভ্রান্ত পথের পশুপাখিরাও। খাবারের খোঁজে বারংবার আতিপাতি করেও যে মিলছে না কিছুই।
প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গত ২৬ মার্চ থেকে বন্ধ পাবনার সকল হোটেল রেস্তোরা। এসব রেস্তোরার উচ্ছিষ্টের উপর নির্ভরশীল পশুপাখি হঠাৎই সম্মুখীন হয়েছে চরম খাদ্য সংকটে। তবে, এমন পরিস্থিতিতেও প্রতিদিন সকালে এক ব্যতিক্রম দৃশ্যের দেখা মিলছে শহরের শ্যামল দই ভাণ্ডারে। প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার পাখির খাবার যোগান দিচ্ছেন পাবনার মিষ্টি ব্যবসায়ী সমর ঘোষ।
স্থানীয়রা জানান, প্রায় এক দশক ধরে শহুরে কর্মজীবী মানুষের পাশাপাশি হাজার দুয়েক শালিকের জন্য প্রাতরাশের আয়োজন করেন দোকানের মালিক সমর ঘোষ। করোনায় রেস্তোরা বন্ধ থাকলেও নিয়ম করে সমরের অপেক্ষাতেই তাদের এই পথ চেয়ে থাকে এই পাখিগুলো। সন্তানের মত আগলে রাখা পাখিগুলোর হতাশও করেননি সমর। তাই ঝুঁকি থাকলেও এই ঘরবন্দি দিনগুলোতে কেবলই শালিকের জন্য দোকান খুলেছেন।
বুধবার সকালে এ প্রতিবেদকের কথা হয় সমর ঘোষের সাথে। তিনি জানান, ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারী মাস থেকে একটি দিনের জন্যও সমরের দোকানে বন্ধ হয়নি পাখিদের প্রাতরাশ আয়োজন। বন্ধের দিন গুলোর কথা ভেবে আগে থেকেই খাবার তৈরী করে রেখেছেন তিনি। প্রতিদিন প্রায় ১৫ থেকে বিশ কেজি চানাচুর খায় এসব শালিক। এই করোনা ভাইরাসের দুঃসময়ে তাদের জন্যই রোজ ভোরে দোকান খুলে খাবার দিয়ে আবারও বাড়ি ফিরে যান।
সমর ঘোষ বলেন, শালিক গুলো আমার নিজের সন্তানের মত। ওরা খাবারের জন্য আমারই পথ চেয়ে থাকে। করোনা ভাইরাস কি, কেন বন্ধ এসব তো ওদের জানা নেই। ওরা খাবারের জন্য এসে ফিরে যাবে এটা কিছুতেই মানতে পারছিলাম না। তাই ঝুঁকি থাকলেও ওদের মায়াতেই খাবার দিতে আসা।
করোনা ভয় এড়িয়ে শালিকের প্রতি সমরের এমন নিঃস্বার্থ ভালোবাসায় মুগ্ধ পরিবেশবিদরাও।
নেচার এন্ড ্ওয়াইল্ড লাইফ কনজারভেশন কমিউনিটি, পাবনার সহ সভাপতি সুপ্রতাপ চাকী জানান, করোনার দিন গুলোতে দূষণ ও প্রকৃতির উপর মানুষের অযাচিত হস্তক্ষেপ কমে আসায় প্রকৃতির প্রাণ ফিরছে। কিন্তু হঠাৎ করেই খাদ্য সংকটে পথের পশু পাখিরা অসহায় হয়ে পড়েছে। এমন ক্রান্তিকালে সমর ঘোষ পাখিদের প্রতি যে ভালবাসা দেখিয়ে প্রমাণ করেছেন, জীবন জীবনেরই জন্য। বিপন্ন পৃথিবীতে প্রাণ ও প্রকৃতিকে ভালবেসে সমরকে উদাহরণ মেনে সবাই এগিয়ে আসলে ভালবাসায় পূর্ণ সত্যিকারের মানবিক পৃথিবী গড়ে তোলা কঠিন কাজ নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: