July 6, 2020

রাশিয়ায় বয়স্কদের ঘর থেকে বেরোনোর ওপর নিষেধাজ্ঞা

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে ৬৫ বছরের বেশি বয়স্কদের বাড়িতে থাকার (হোম কোয়ারেন্টাইন) নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যথায় তাদের গ্রামের বাড়িতে চলে যেতে বলা হয়েছে। শহরটির মেয়র সেরজেই সবিয়ানিন নিজস্ব ওয়েবসাইটে এই নির্দেশ দিয়েছেন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

তবে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের (বয়স ৬৭ বছর) ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। মেয়র বলেছেন, প্রেসিডেন্ট এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবেন। তিনি তার কার্যালয় থেকে রাষ্ট্রীয় কার্যক্রম চালিয়ে যাবেন।

রাশিয়ায় এ পর্যন্ত ৪৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এদের বেশিরভাগই মস্কোর বাসিন্দা। মেয়র সবিয়ানিন বলেছেন, আগামী ২৬ মার্চ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বয়স্কদের অবশ্যই বাড়িতে অবস্থান করতে হবে।

রাশিয়ায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কেন্দ্রীয়ভাবে যে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে, মেয়র তার সদস্যও। তিনি বলেন, ‘আপনারা সম্ভবত এটা পছন্দ করবেন না, হয়তো এর বিরোধিতাও করতে পারেন। কিন্তু আমার প্রতি আপনারা আস্থা রাখুন, এই নির্দেশ আপনাদের স্বার্থেই জারি করা হয়েছে।’

করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ইতোমধ্যে কড়াকড়ি আরোপ করেছে রাশিয়া। সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া ইভেন্টগুলো স্থগিত করে দেয়া হয়েছে। স্কুল ও ফিটনেট ক্লাবগুলোও বন্ধ রয়েছে। বিদেশিদের জন্য সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

তবে নির্দেশ অমান্যকারীদের জন্য এশিয়া ও ইউরোপের দেশগুলোর মতো কারাবাসের বিধান করেনি রাশিয়া সরকার।

জরুরি মুহূর্তে যোগাযোগের জন্য একগুচ্ছ তালিকা প্রকাশ করে মস্কো মেয়র বলেছেন, ‘জরুরি প্রয়োজনে আপনারা দোকান অথবা ফার্মেসিতে যেতে পারবেন। যদি বেশি গরম পড়তে শুরু করে তাহলে সবচেয়ে ভালো হয় যদি আপনারা ডাচায় চলে যান।’

‘ডাচা’ গ্রামের বাড়িতে তৈরি করা বাগান-সম্বলিত সুজ্জিত এক ধরনের কটেজ, যেখানে রাশিয়ানরা ছুটির দিনে কিংবা গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে বেড়াতে যান।

যেসব বয়স্করা নির্দেশ অমান্য করে ঘর থেকে বের হবেন তারা সর্বোচ্চ চার হাজার রুবল (রাশিয়ান মুদ্রা) জরিমানার সম্মুখীন হতে পারেন বলে সতর্ক করে দিয়েছেন মেয়র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: